কালিহাতী সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে সংবাদ করতে গিয়ে সাংবাদিকরা অবরুদ্ধ


০৯:৪৬ পিএম, ২৫ জুন ২০২৪
কালিহাতী সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে সংবাদ করতে গিয়ে সাংবাদিকরা অবরুদ্ধ - Ekotar Kantho
কালিহাতী সাব-রেজিস্ট্রার অফিসে অবরুদ্ধ সাংবাদিকরা

একতার কণ্ঠঃ টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার মো. খায়রুল বাশার ভূঁইয়া পাভেলের দুর্নীতির সংবাদ করতে গিয়ে উপস্থিত সাংবাদিকরা সাব-রেজিস্ট্রার কতৃক তার কার্যালয়ে অবরুদ্ধ হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) দুপুরে উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার অফিস কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে সাব-রেজিস্ট্রার মো. খায়রুল বাশার ভূঁইয়া পাভেলের পক্ষে কর্মচারী আরতি রানীর ১২ লাখ টাকার দুর্নীতির বিরুদ্ধে স্বপক্ষে বক্তব্য নিতে গেলে সাব রেজিস্ট্রার খায়রুল বাশার ভূঁইয়া পাভেল দরজা বন্ধ করে দিতে বলেন। এর প্রতিবাদে সাংবাদিকরা তার এজলাসের সামনে অবস্থান গ্রহণ করেন। এ ঘটনায় কালিহাতীতে কর্মরত সকল সাংবাদিক কালিহাতী প্রেসক্লাব ও কালিহাতী রিপোর্টার্স ইউনিটির সদস্যরা একাত্মতা ঘোষণা করে অবস্থান নেন।

সাংবাদিকরা জানান, সাব রেজিস্ট্রার অফিসের কর্মচারী আরতি রানীর বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তার স্বপক্ষে বক্তব্য নেওয়ার জন্য গেলে সাব রেজিস্টার খাইরুল বাশার ভূইয়া পাভেল উত্তেজিত হয়ে বলেন, আপনারা এখানে প্রবেশ করেছেন কেন? মন্ত্রনালয়ের লিখিত অনুমতি নিয়ে আপনারা এখানে প্রবেশ করবেন। এক পর্যায়ে সাব-রেজিস্ট্রার জানান, আপনারা দলিল চুরি করতে এসেছেন। এছাড়াও রাষ্ট্রের ক্ষতি সাধন হতে পারে বলে তিনি হুমকি দেন।

এক পর্যায়ে কর্মচারীদের গেইট বন্ধ করার নির্দেশ দেন। পরে তার নির্দেশ মোতাবেক কর্মচারীরা গেইট বন্ধ করে দেয়। ফলে উপস্থিত সাংবাদিকরা অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে। কিছুক্ষণ পরে গেইট খুলে দেওয়া হয়। কিন্তু উপস্থিত সাংবাদিকরা এর প্রতিবাদে সাব-রেজিস্ট্রারের এজলাসের সামনে অবস্থান নিয়ে বসে পড়েন।

পরে বিকেলে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট জাফর আহমেদের পরামর্শক্রমে কালিহাতী প্রেসক্লাবের সভাপতি রঞ্জন কৃষ্ণ পন্ডিত ও টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের কার্যকরী সদস্য মামুনুর রহমান মিয়া মঙ্গলবার সাংবাদিকদের এই কর্মসূচির সমাপ্ত ঘোষণা করেন। পরবর্তীতে প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দের সাথে আলোচনা করে নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে জানানো হয়।

এ প্রসঙ্গে কালিহাতী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোল্লা মুশফিকুর মিল্টন বলেন, চরম দুর্নীতিবাজ সাব-রেজিস্টার খাইরুল বাশার ভূইয়া পাভেল এ ঘটনায় ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত এবং তার শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।

কালিহাতী রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক এম এম হেলাল বাদশা বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের সূতিকাগার দেশবরেণ্য মুক্তিযোদ্ধা, সংগঠক, সাহিত্যিকদের সমৃদ্ধ কালিহাতী থেকে অভদ্র, অশোভন সাব-রেজিস্টারের প্রত্যাহার ও শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত সকল স্বেচ্ছাসেবী এবং সুশীল সংগঠন আন্দোলন চালিয়ে যাবে বলে ঘোষণা দেন।

এর পূর্বে মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় নিজস্ব কার্যালয়ে সাব-রেজিস্ট্রার মো. খায়রুল বাশার ভূঁইয়া পাভেলের প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেন কালিহাতী দলিল লেখক কল্যাণ সমিতি।


নিউজটি শেয়ার করুন

কপিরাইট © ২০২২ একতার কণ্ঠ এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।