টাঙ্গাইলে দেড় লাখের বেশি পরিবার পাচ্ছেন টিসিবি পণ্য


২০ মার্চ ২০২২, ০৭:৪৪ | ১২১১ বার পঠিত
Ekotar Kantho
ছবি: একতার কণ্ঠ

একতার কণ্ঠঃ টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় ১ লাখ ৬৮ হাজার ৭১১টি নিম্ন আয়ের পরিবারকে প্রথম দফায় ভর্তুকিতে কম মূল্যে সরকারি সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) এর মাধ্যমে পণ্য বিতরণ শুরু হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ টাঙ্গাইলে গৃহবধূকে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ

রবিবার (২০ মার্চ) সকালে টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় করটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের এমপি মো. ছানোয়ার হোসেন।এ সময় সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ শাহজাহান আনছারী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রানুয়ারা খাতুন, ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা খালেকুজ্জামান চৌধুরী মজনু উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জেলার ১ লাখ ৬৮ হাজার ৭১১টি নিম্ন আয়ের পরিবার ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪২২ লিটার তেল, ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪২২ কেজি চিনি এবং ৩ লাখ ৩৭ হাজার ৪২২ কেজি মশুর ডাল পাবেন।

প্রথম দফায় একজন ক্রেতা ৫৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ ২ কেজি চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে ২ কেজি মসুর ডাল, ১১০ টাকা দরে ২ লিটার ভোজ্যতেল তেল পাচ্ছেন। ৩ টি আইটেম ৪৬০ টাকা দিয়ে কিনতে পারবেন। তারমধ্যে ৪৩০ টাকা ডিলার সরকারের কাছে জমা দিবে। আর ৩০টাকা ডিলারের লাভ থাকবে।

এসব পণ্য সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত ১২টি উপজেলায় ফ্যামেলি কার্ডের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ ট্রাকের মাধ্যমে নির্দিষ্টস্থানে টিসিবি’র পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। স্বল্পমূল্যে রোজার আগে তেল, চিনি ও ডাল কিনতে পেরে নিম্ন-আয়ের লোকজনও খুশি।

এদিকে, জেলায় ১২টি উপজেলায় টিসিবি’র পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার অথোরাইজড অফিসার হিসেবে কাজ করছেন। এ লক্ষে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সমন্বয়ে মনিরটিং টিম গঠন করা হয়েছে।

এছাড়া প্রতিটি উপজেলায় ট্যাগ অফিসার মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। তারা প্রতিটি ডিলারের পণ্য বিক্রি কার্যক্রম পরিদর্শন ও মনিটরিং করছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


আপনার মতামত দিন

কপিরাইট © ২০২২ একতার কণ্ঠ এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।