টাঙ্গাইলে হাটে ভিটি পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রতারণা; আটক ৩


০৮:১১ পিএম, ২৫ অগাস্ট ২০২২
টাঙ্গাইলে হাটে ভিটি পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রতারণা; আটক ৩ - Ekotar Kantho

একতার কণ্ঠঃ টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বাণিজ্যিক এলাকা করটিয়া হাটে ভিটি( পজিশন দোকান) পাইয়ে দেওয়ার নামে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে তিন প্রতারকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১২ সিপিসি-,৩টাঙ্গাইল।

বুধবার(২৪ আগস্ট) রাতে করটিয়া হাট বাইপাস এলাকায় আনোয়ার ফিলিং স্টেশনের সামনে থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব টাঙ্গাইলের কোম্পানী কমান্ডার মো. এরশাদুর রহমান।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার ঝড়কা(ভামীকাত্রা) গ্রামের মৃত নিতাই পালের ছেলে মনোরঞ্জন পাল(৩৮), টাঙ্গাইল সদর উপজেলার অলোয়া গ্রামের রূপচানের ছেলে মো. হাসেন আলী, টাঙ্গাইল পৌর সভার আকুর-টাকুর পাড়া এলাকার মৃত দারোগ আলীর ছেলে মো. ফজলুর রহমান।

বৃহস্পতিবার(২৫ আগস্ট) সকালে র‌্যাব-১২ এর প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, সহকারী কমিশনার (ভূমি) টাঙ্গাইল অফিসের একজন কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন লোকজনকে করটিয়া কাপড়ের হাটের ভিটি (পজিশন দোকান) পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

খবর পেয়ে র‌্যাব-১২ সিপিসি-৩ টাঙ্গাইল’র কোম্পানী কমান্ডার মো. আনিসুজ্জামান ও স্কোয়াড কমান্ডার মো. এরশাদুর রহমান’র নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল বুধবার(২৪ আগস্ট) রাতে করটিয়া হাট বাইপাস এলাকা থেকে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার ঝড়কা(ভামীকাত্রা) গ্রামের মৃত নিতাই পালের ছেলে মনোরঞ্জন পাল(৩৮), টাঙ্গাইল সদর উপজেলার অলোয়া গ্রামের রূপচানের ছেলে মো. হাসেন আলী, টাঙ্গাইল পৌর সভার আকুর-টাকুর পাড়া এলাকার মৃত দারোগ আলীর ছেলে মো. ফজলুর রহমান নামের তিন প্রতারককে গ্রেপ্তার করে।

এ সময় গ্রেপ্তারকৃত তিন প্রতারকের কাছ থেকে ১টি শপিং ব্যাগের ভিতর হতে ডুপ্লিকেট কার্বন রশিদ বহি, দোকান বরাদ্ধের (ডি. সি, আর) এর ৭২টি জাল কপি, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়সহ টাঙ্গাইলের বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তার নকল/জাল দাপ্তরিক সীল ১১টি এবং ০৩টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।
র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে প্রতারকরা করটিয়া হাটে সরকারী খাস জমিতে ভিটি (পজিশন দোকান) এর জন্য যে সকল লোকজন আসত তাদের প্রথমে সহকারী কমিশনার (ভূমি), টাঙ্গাইল’র পরিচয় দিয়ে বিশ্বাস অর্জন করে তাদের নিকট হতে লক্ষ লক্ষ টাকার দামের জমির ভিটি(পজিশন দোকান) সূলভ মূল্যে নকল সীল ও স্বাক্ষর করা ভুয়া ডি,সি,আর দিয়ে প্রতারণার কথা স্বীকার করে।

র‌্যাব আরও জানায়, গ্রেপ্তারকৃত প্রতারকদের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করা হয়েছে।


পাঠকের মতামত

-মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

নিউজটি শেয়ার করুন

কপিরাইট © ২০২২ একতার কণ্ঠ এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি ।